বিয়ে আবেগ ও বাস্তবতা Pdf || 2020 Islamic Pdf|| 2020 বাংলা Pdf বই

বিয়ে আবেগ ও বাস্তবতা Pdf || 2020 Islamic Pdf|| 2020 বাংলা Pdf বই

বিয়ে আবেগ ও বাস্তবতা Pdf || 2020 Islamic Pdf|| 2020 বাংলা Pdf বই

বিয়ে আবেগ ও বাস্তবতা Pdf || 2020 Islamic Pdf|| 2020 বাংলা Pdf বই|| Pdf আকারে ইসলামিক বই Aazeen Of Islam 
আমাদের ফেসবুক পেইজ: https://www.facebook.com/AazeenOfIslam/

আমাদের ইউটিউব চ্যানেল : https://www.youtube.com/c/AazeenOfIslam

Aazeen Of Islam.com শুদ্ধ ইসলামী জ্ঞানের নানা উপকরণের একটি সমৃদ্ধ ভাণ্ডার
এখানে আপনারা আপাদত পাচ্ছেন ৪০০+ ইসলামিক বই এবং প্রতিদিন ই নতুন নতুন বই আপলোড দেয়া হচ্ছে আমাদের সাইট টিতে

এছাড়াও আপনারা আমাদের সাইটিতে পাচ্ছেন ইসলামি অডিও/ ভিডিও লেকচার এবং বিভিন্ন ক্বারীর কোরআন তিলাওয়াত,
আরও যুক্ত হতে যাচ্ছে অনেক কিছু যার জন্য আমরা প্রতিনিয়তই আপডেটের কাজ চালিয়ে যাচ্ছি।
আমাদের মূল উদ্দেশ্যঃ
১। দ্বীন প্রচার,
২।কম সচেতন মুসলিমদের মাঝে সচেতনতা সৃষ্টি করা,
৩।আমুসলিম ও নাস্তিকদের মাঝে ইসলামের সঠিক চিত্র তুলে ধরা,
৪।সকলের ভ্রান্ত ধারণার অবসান ঘটানো

বিয়ে আবেগ ও বাস্তবতা Pdf || 2020 Islamic Pdf|| 2020 বাংলা Pdf বই

“Disclaimer”
১। আমাদের উদ্দেশ্য মোটেও ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানো নয়
২। আমাদের বই গুলো আমরা কখনো নিজে Pdf করে থাকি না করলেও অনুমোদন নিয়েই করা হয়ে থাকে
৩।বইগুলো যেহেতু আমাদের কালেক্টেড তাই প্রাকশণীর আমাদের উপর কোন অভিযোগ গ্ণ্য হবে না সেক্ষেত্রে যে PDF টি করেছে তার কাছে আপনি ক্লেইম করতে পারেন।

আমাদের সাইটের APP

ডাউনলোডের পূর্বে VPN ব্যবহার করুন কারণ ফাইলটি মিডিয়া শেয়ার এ দেয়া
(NOW AVAILABLE ONLY FOR ANDROID )
https://drive.google.com/file/d/1Yh5xFhQ8-dLvWT5bprPtixdjDsACsinC/view?usp=sharing

বিয়ে আবেগ ও বাস্তবতা Pdf || 2020 Islamic Pdf|| 2020 বাংলা Pdf বই

“BOOK REVIEW”

বইয়ের নামঃবিয়ে আবেগ ও বাস্তবতা

লেখকঃ  ফাতেমা মাহফুজ

পৃষ্ঠা : ৮৩

সাইজ :২.২৮মেগাবাইট

Download করুন

বিবাহপ্রার্থীদের কাছ থেকেই শিরােনামের সত্যতা যাচাই হয়েছে। শুধু তাই নয়, ডাকাত তাে জোরপূর্বক টাকা-সম্পদ আত্মসাৎ করে, কিন্তু ঘটকরা এখন ডাকাতের চেয়েও সাঙ্ঘাতিক এরা মানুষের দুর্বলতা, আবেগ ও অসহায়ত্বকে পুঁজি করে, কখনাে ভুলিয়ে বা ফুসলিয়ে, কোথাও বা জোর দাবি খাটিয়ে মােটা অঙ্কের টাকা হাতিয়ে নেয়। 

অনেক পরিবারেই মা-বাবা নিরুপায় হয়ে দিয়ে যাচ্ছে। কোথাও বা ঘটকের খরচ চালাতে না পেরে অভিভাবকদের মধ্যেও সৃষ্টি হচ্ছে মনােমালিন্য। অন্যদিকে, বছরের পর বছর টাকা দিয়ে গেলেও ঘটকের দ্বারা কাজের কাজ কিছুই হচ্ছে না বলে অভিযােগও রয়েছে। 

এটা কি ঘটকদের চালাকি, নাকি এটাই এখন তাদের ধান্দা! রাজধানী ঢাকায় উন্নত ডেকোরেশনে সজ্জিত অভিজাত ও বড় একটি ম্যারিজ মেকিং সংস্থা সরেজমিনে দেখে এসে একজন মুরুব্বির প্রতিক্রিয়া হলাে, নিজের মেয়ের জন্য সেখানে খোঁজখবর নিতে গিয়ে প্রথমেই সন্দেহের মধ্যে পড়ে যাই।

বিয়ে-আবেগ-ও-বাস্তবতাDownload

 একটা ম্যারিজ কোম্পানির এতাে হাইফাই স্ট্যাটাস কিভাবে? ভিতরে আর কী হয়?” এদিকে সংস্থাটির শর্ত হলাে, বায়োডাটা জমা দেয়া মাত্র ৫ হাজার টাকা জমা দিতে হবে। আপনার দেয়া বায়ােডাটার সাথে কারাে বায়ােডাটা মানানসই হলে পরে জানানাে হবে। 

এখন প্রশ্ন হচ্ছে, এরা কি ভেবে দেখেছে বাংলাদেশের কয়টা পরিবারের শুরুতেই এতাে টাকা দেয়ার সামর্থ্য আছে? তাছাড়া আজকাল অনলাইনে যেখানে অনেক কাজ হয়ে যাচ্ছে, সেখানে আসলেই কি এতাে খরচ পড়ে? যাই হােক, এবার কিছু সাইনবাের্ড ছাড়া লােকাল ঘটকের কথা বলি। এদের দাবি হলাে, কাজ হাতে নেয়া মাত্র ৫’শ টাকা দিতে হবে। পরবর্তীতে যতবার বাসায় আসবে, ততবার ২’শটাকা দিতে হবে। বিয়ে সম্পন্ন হওয়ার পর আরাে ২০ হাজার টাকা দিতে হবে। অবশ্য টাকার এই পরিমাণ নির্দিষ্ট নয়, স্থানভেদে বিভিন্ন হয়। একজন ঘটক নিজেই জানালেন, ‘আমার ধানমন্ডি এলাকায় এক রেট, পুরান ঢাকার অলি-গলিতে আরেক রেট।