পরিবেশ ও স্বাস্থ্য বিজ্ঞানে মুহাম্মদ (সা) -PDF Islamic Books

পরিবেশ ও স্বাস্থ্য বিজ্ঞানে মুহাম্মদ (সা) -PDF Islamic Books

মাওলানা মোঃ আঃ ছালাম মিয়া

BOOK PAGES: 321 PAGES

BOOK SIZE: 8 MB

প্রকাশক

মাে: রফিকুল ইসলাম

পিস পাবলিকেশন

প্রকাশকাল

অক্টোবর-২০১৩ ইং

দ্বিতীয় সংস্করণ

মে-২০১৪

কম্পিউটার কম্পােজ

পিস হ্যাভেন

মুদ্রণে

ক্রিয়েটিভ প্রিন্টার্স

বইটির রিভিউ হিসেবে বই কিছু অংশ এখানে হুবাহু তুলে দেয়া হলো আশা করি আমাদের এই নতুন উদ্যোগটির মাধ্যমে আপনারা সবাই উপকৃত হবেন ………

রােগ নিরাময়ে মধু ব্যবহারের ইতিহাস

গ্রিক চিকিৎসক হিপােক্রেটাস বিভিন্ন ধরনের রােগ নিরাময়ে মধু ব্যবহার করতেন। তিনি মধুকে অতিরিক্ত খাদ্য হিসেবে ব্যবহার করার পরামর্শ দিয়েছেন। বিশিষ্ট চিকিৎসা বিজ্ঞানী গ্যালেন মধুর ঔষধি গুণাগুণ বর্ণনা করেছেন এবং এর বিষবিরােধী ধর্মও উল্লেখ করেছেন। তার মতে মধু আন্দ্রিক রােগে উপকারী। বিশেষ করে দুর্বল শিশুদের মুখের অভ্যন্তরীণ পঁচনশীল ঘা নিরাময়ে এটি খুবই উপকারী। বিভিন্ন ধরনের নিঃসরণ নিয়ন্ত্রণে সহায়তা করে এবং উষ্ণতা বৃদ্ধি করে। এটি ক্ষুধা ও স্মৃতি শক্তি বৃদ্ধি করে এবং শোষক হিসেবে ব্যবহৃত হয়। মধু পাকস্থলীর বিভিন্ন প্রকার রােগে বিশেষ উপকারি।

আল-সমরকান্দী এবং ইবনে আল-নাসিফ বিভিন্ন প্রকার মূত্র রােগে মধু ব্যবহার করতেন। আল-রাজী মূত্র পাথরীতে কালিজিরার সাথে মধু ব্যবহার করতেন। ইউনানী মধ্য যুগের চিকিৎসা বিজ্ঞানীগণ বিভিন্ন রােগে মধু ব্যবহার করতেন, (যেমন-পাকস্থলী ও অন্ত্রের রােগ, কোষ্ঠকাঠিন্য, অম্লাধিক্য, মুখের প্রদাহ, চোখের রােগ, চোখের পাতায় প্রদাহ, কর্ণিয়ার ক্ষত, কর্নিয়ার অস্বচ্ছতা, স্নায়ুরােগ, পক্ষাঘাত, রক্ত প্রবাহের অবরুদ্ধতাজনিত হৃদরােগ এবং উচ্চ রক্তচাপ, ত্বকের রােগ, সংক্রমণজনিত ক্ষত, সর্দি, কাশি, নিউমােনিয়া ইত্যাদি।) মধু সম্পর্কিত জামনি হৃদরােগ বিশেষজ্ঞ ডাঃ ই-কচ-এর উক্তি

<<নিচে বইটির মিডিয়া ফায়ার লিকং দেয়া হলো ডাউনলোড করে নিন >>


PDF

ডা: ই-কচ-এর মতে, উপযুক্ত ঘাস খেয়ে ঘােড়া যেমন তেজী হয় তেমনি প্রত্যহ সকালে এক চা-চামচ করে খাটি মধু খেলে হৃদপিণ্ড শক্তিশালী হয়। মধু ব্যাকটেরিয়া নির্মূল করে। গ্যাস্টিক, আলসার অথবা ডিওডেনাল আলসারের জন্য “হেলিকো ব্যাকটরপাইলরী” নামক ব্যাকটেরিয়াকে দায়ী করা হয়। এই ব্যাকটেরিয়ার আক্রমণে ক্যান্সার ও হৃদরােগ হয়। লন্ডনে সেন্ট জর্জ হাসপাতালে পরিচালিত এক গবেষণায় বলা হয়েছে, এই ব্যাকটেরিয়ার উপস্থিতিতে হৃদরােগের সম্ভাবনা দ্বিগুণ বৃদ্ধি করে। শিশুদের দৈহিক বৃদ্ধি প্রভাবিত করে। একটি গবেষণায় দেখা গেছে, যে সব উঠতি বয়সের মেয়েদের……